সময় এখন সেন্টমার্টিন যাওয়ার..

শীত এলে ঘুরতে যাওয়ার প্রবণতা বাড়ে। শীতকালকেই ভ্রমণের উপযুক্ত মনে হয়। শীতকালে আমাদের দেশে ভ্রমণের অনেক স্থান রয়েছে।

স্কুল-কলেজের পরীক্ষা শেষে দীর্ঘদিনের ছুটি শুরু হয় ডিসেম্বরে। পরিবার, বন্ধু, সহকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে আয়োজন করতে পারেন বারবিকিউ পার্টি।

টানা কর্মব্যস্ত সময়কে পেছনে ফেলতে ঘুরে আসুন প্রবালদ্বীপ খ্যাত সেন্টমার্টিন থেকে। বালি, পাথর, প্রবাল আর জীব বৈচিত্র্যের সমন্বয়ে গড়া সেন্টমার্টিন অনন্য রূপে ধরা দেয়।

প্রবাল সমৃদ্ধ এই দ্বীপের স্বচ্ছ পানির জেলি ফিশসহ হরেক রকমের সামুদ্রিক মাছ, কচ্ছপ যেন প্রবাল রহস্যের জীবন্ত পাঠশালা!সেন্টমার্টিন দ্বীপের মানুষ নিতান্ত সহজ-সরল, তাদের উষ্ণ আতিথেয়তা পর্যটকদের আকর্ষণও বটে।

কীভাবে যাবেন :


কক্সবাজার জেলা শহর থেকে ১২০ কিলোমিটার দূরে সেন্টমার্টিনের অবস্থান। এর আয়তন ১৭ বর্গ কিলোমিটার। সেন্টমার্টিন যেতে হলে আগে যেতে হবে কক্সবাজার। সেখান থেকে টেকনাফ।

টেকনাফ থেকে সি-ট্রাক, জাহাজ কিংবা ট্রলারে চড়ে পৌঁছতে হবে সেন্টমার্টিনে। তবে যে কোনো সমুদ্রযাত্রায় ট্রলার কখনও নিরাপদ বাহন হতে পারে না। কথাটি মনে রাখতে হবে। সে ক্ষেত্রে জাহাজ শেষ ভরসা।
Trippin> 🚕Home pickup&Drop এর মাধ্যমে আপনি সকল পরিবহন সুবিধা নিতে পারেন।

কক্সবাজার থেকে সরাসরি রাস্তা আছে টেকনাফ যাওয়ার |

কোথায় থাকবেন :
সেন্টমার্টিনে থাকার জন্য বেশ উন্নতমানের কয়েকটি হোটেল ও কটেজ রয়েছে। সেন্টমার্টিনের হোটেলগুলো সকল প্রকার তথ্য জানতে এবং রুম ওপরিবহনের টিকেট বুকিং দিতে ক্লিক করুন🏡🏡 www.trippin.com.bd

এছাড়াও প্রয়োজনে কল করতে পারেন ☎09613 11 15 55

Posted in General.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *