এই শীতে ঘুরে আসুন খাগড়াছড়ি হয়ে রাঙ্গামাটি..

ঋতুর পালা বদলে আসে শীত। শীতকালকে বলা হয় পাহাড় ভ্রমণের আদর্শ সময় তাই শীতকালে খাগড়াছড়ি ও রাঙ্গামাটির হাজার পর্যটকের পদচারণায় মুখর হয়ে উঠে।

কুয়াশা মাখা হিমেল পরিবেশ প্রকৃতিকে আরো নবীন করে তোলে।

চলুন দেখে নেই দর্শনীয় স্থানসমূহ কি কি ও তাদের বিস্তারিত বর্ণনা..

কাপ্তাই

রাঙ্গামাটির কাপ্তাই হ্রদ দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে বড় হ্রদ। এখানে পানি এত পরিষ্কার। রোদ্রজ্জল দিনে নৌকায় করে কাপ্তাই হ্রদ পাড়ি দেওয়ার মজাই আলাদা। চারিদিকে পানি আর পানি। দুই ধারে পাথুরে পাহাড়। মনোরম আবহাওয়া মনে প্রশান্তি নিয়ে আসে।

লংগদু

সবুজ প্রকৃতি আর চারপাশে হ্রদের নীল জলরাশি। লেকের অংশজুড়ে মাছ ধরার সারি সারি নৌকা। ছোট ছোট দ্বীপ আর দূর পাহাড়ের সারি। দ্বীপগুলোর ঠিক উপরে ছোট ছোট ঘর।

প্রত্যেক ঘরের ঘাটে বেঁধে রেখেছে একটি করে নৌকাও। এ দৃর্শ্যটি রাঙামাটির সদর থেকে লঞ্চ করে লংগদু উপজেলায় যাওয়ার পথেই।

যাওয়ার পথের এ দৃশ্যই মনে করিয়ে দেয় আরও কত সৌন্দয্য নিয়ে বসে আছে প্রকৃতির রুপসীকন্যা এ লংগদু। রাঙামাটির সদর থেকে লংগদু উপজেলার দুরত্ব ৭৬ কিলোমিটার।

সাজেক ভ্যালি

সাজেক ভ্যালি রাঙ্গামাটি জেলার সর্বউত্তরের মিজোরাম সীমান্তে অবস্থিত। সাজেক হলো বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ইউনিয়ন, যার আয়তন ৭০২ বর্গমাইল।

সাজেক এর উত্তরে ভারতের ত্রিপুরা, দক্ষিনে রাঙামাটির লংগদু, পূর্বে ভারতের মিজোরাম, পশ্চিমে খাগড়াছড়ির দীঘিনালা। সাজেক রাঙামাটি জেলায় অবস্থিত হলেও এর যাতায়াত সুবিধা খাগড়াছড়ি এর দীঘিনালা থেকে।

রাঙামাটি থেকে নৌপথে কাপ্তাই হয়ে এসে অনেক পথ হেঁটে সাজেক আসা যায়। খাগড়াছড়ি জেলা সদর থেকে এর দূরত্ব ৭০ কিলোমিটার।

কোথায় থাকবেন :

খাগড়াছড়ি ও রাঙ্গামাটি হোটেলগুলো সকল প্রকার তথ্য জানতে এবং রুম ওপরিবহনের টিকেট বুকিং দিতে ক্লিক করুন🏡🏡 www.trippin.com.bd

এছাড়াও প্রয়োজনে কল করতে পারেন ☎09613 111555

Posted in General.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *